in , , ,

হযরত শব্দের অর্থ

‘হযরত’ ﺣﻀﺮﺓ আরবী শব্দ। এর অর্থ নৈকট্য, নেতা, জনাব, সম্মানসূচক উপাধি। ﺟﻨﺎﺏ ‘জনাব’ আরবী শব্দ, উভয় লিঙ্গ। অর্থ সম্মানিত ব্যক্তি, আশ্রয়স্থল ইত্যাদি (ফীরোযুল লুগাত (উর্দূ)।

সম্মানিত ব্যক্তিদের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য তাঁদের নামের শুরুতে ‘হযরত’, ‘জনাব’ ইত্যাদি ব্যবহৃত হয়। যেমন: হযরতুল উস্তায/আদ-দাকতূর, হযরতুল মুহতারাম ইত্যাদি’ (মু‘জামুল লুগাতিল আরাবিইয়াহ আল-মু‘আছারাহ ১/৪০১, ৫১৪)।

আরবী ভাষায় ‘হযরত’ শব্দের ব্যবহার বহূ পূর্ব থেকেই চালু আছে। যেমন ইমাম যাহাবী, হাফেয ইবনু কাছীর (রহঃ) প্রমুখ বিদ্বানগণ সম্মানিত ব্যক্তিদের সম্বোধনের ক্ষেত্রে এ শব্দ ব্যবহার করেছেন (সিয়ারু আ‘লামিন নুবালা ১০/৫৫২, আল-বিদায়াহ ১৩/২৬১)।

বস্তুতঃ প্রত্যেক দেশের প্রচলিত সর্বোচ্চ সম্মানসূচক শব্দ “রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম” ও “ছাহাবায়ে কেরামের” নামের পূর্বে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

যেমন: আরব দেশে উপনাম দিয়ে ডাকাকে সম্মানসূচক মনে করা হত। যেমন, আবুল ক্বাসেম, আবু হুরায়রা, আবু হাফছ ইত্যাদি। বর্তমানে সেখানে শায়খ, সাইয়েদ, বহুবচনে সাদাত, সাইয়েদাত ইত্যাদি বলা হয়।

এছাড়া ইংরেজীতে ইয়োর অনার, হিজ ম্যাজেস্টী, ইয়োর এক্সেলেন্সী ইত্যাদি।

একইভাবে উপমহাদেশে জনাব, হযরত, হুযুর, মাওলানা ইত্যাদি শব্দ ব্যবহার করা হয় ইসলামী ব্যাক্তি, স্কলার ইত্যাদির ক্ষেত্রে।

এখন স্বাভাবিক প্রশ্ন আসতে পারে “হযরত” শব্দ অর্থের দিক থেকে তো সম্মানিত। তাহলে ডোনাল্ড ট্রাম্প, পুতিন, কিম ইত্যাদি ব্যাক্তির ক্ষেত্রে এই শব্দ ব্যাবহার অনুপোযুক্ত বা হাস্যকর হবে কেন ?

এর জবাব হলঃ অর্থের দিক থেকে যুক্তি দিয়ে অনেক শব্দের প্রয়োগ উদ্ভট লাগে। যেমন: ধরেন ইংরেজী “স্পিকার” অর্থ মাইক। এখন সংসদে দাঁড়িয়ে কেউ যদি বলে মাননীয় মাইক সাহেব। তখন বিষয়টি হাস্যকর হবে। কারণ, আমাদের প্রচলনে স্পিকার বলতে সংসদের পরিচালককে মিন করা হয়।

আদালতে বিচারককে উদ্দেশ্য করে ইউর অনার বলা হয়। এই শব্দের প্রচলন এভাবে চলে আসছে। তাই অন্য শব্দের একই অর্থবোধক শব্দ দিয়ে সম্বোধন করলে উদ্ভট লাগবে।

অনুরুপ, আরবী ﺣﻀﺮﺓশব্দ আমাদের দেশে সাধারণত প্রিয় নবী (সঃ) এবং আসহাবে রাসূল (সঃ) আর আলেম, ওলামা ইসলামী স্কলারদের জন্য সম্মান সূচক শব্দ হিসাবে প্রচলন আর পরিচিত। তাই এই শব্দের অর্থের যুক্তি দেখিয়ে সাধারণ পাব্লিকের ক্ষেত্রে যত্রতত্র এই শব্দ ব্যাবহার করলে ব্যাঙ্গাত্মক মনে হবে।

আমাদের এমপি, মন্ত্রীদের সম্বোধনের জন্য “মাননীয়” শব্দটা সাধারণ প্রচলিত এবং সেটা ব্যাবহার করতে অসুবিধা নাই।

সংসদে এক এমপি প্রধানমন্ত্রীকে “হযরত” শব্দ দিয়ে সম্বোধন করেছে। তাই প্রচলিত অর্থের বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রীর নামের শুরুতে হযর শব্দ ব্যাবহার যাস্ট বাড়াবাড়ি আর তেল সাপ্লাই মাত্র।

লেখকঃ Abir Al Nahiyan

One Comment

Leave a Reply

Leave a Reply

অল্প বয়সে চুল পেকেছে? যেনে নিন সমাধান

লিভার সিরোসিস কি? কেন হয় এবং প্রতিকার ও চিকিৎসা কি?