in , ,

বাসে চড়লে বমি হয়? যেনে নিন কি করবেন?

কম বেশি সবার‌ই ভ্রমণ করতে ভালোবাসেন। কিন্তু যদি বাসে চড়েই বমি করে ফেলেন। তবে ভ্রমণের আনন্দ আর থাকল কোথায়। এভাবে বাসে চড়লে বমি হাওয়ার অনেক কারণ হতে পারে; বাসে চড়ার অভ্যাস না থাকলে, অতিরিক্ত গরমে, বাসের দূর গন্ধে, কিংবা লম্বা সফর এর কারণেও হতে পারে।

অনেক সময় তেমন কোনও কারণ ছাড়াই বমি বমি লাগে। আবার অনেকের কোথাও ঘুরতে যাওয়ার সময়, দীর্ঘ ক্ষণ বাসে-ট্রেনে যাতায়াতের ধকলে, মাথা ব্যথা হওয়ার কারণে বা বদ হজমের কারণে বমি বমি ভাব হয়ে থাকে। হঠাৎ করে বমি হলে অনেকেই আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন।

এই সমস্যা কেন হয় এবং কী করণীয়, এ বিষয়ে অনেকেই তেমন কিছু জানেন না। বমি বমি ভাব লাগার সাধারণ কিছু কারণ আছে, মূলত এই কারণগুলোতে বমি বমি ভাব হয়ে থাকে।

বমি বমি ভাবের কারণ:

  1. অতিরিক্ত ক্লান্তি,
  2. গতির কারণে অসুস্থতা বা মোশন সিকনেস,
  3. যেকোনও শারীরিক ব্যথা,
  4. মাইগ্রেইনের ব্যথা,
  5. অতিরিক্ত ধূমপান,
  6. হজমের সমস্যা ইত্যাদি।

রান্নাঘরের টুকিটাকি দিয়ে এই বমি বমি ভাব দূর করা সম্ভব। আসুন এ বিষয়ে জেনে নেয়া যাক…

লবঙ্গ:

  • ১ চা চামচ লবঙ্গের গুঁড়ো ১ কাপ পানিতে ৫ মিনিট সিদ্ধ করুন। ঠান্ডা হয়ে গেলে আস্তে আস্তে এটি পান করুন। আপনার যদি এর স্বাদ কটু লাগে তবে এর সঙ্গে ১ চা চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এ ছাড়া ১-২ টি লবঙ্গ কিছুক্ষণ চিবিয়ে নিন। এটি সঙ্গে সঙ্গে বমি বমি ভাব দূর করে দেবে।

লেবু:

  • খুব সহজ এবং সস্তা একটি উপায় হল লেবু। এক টুকরো লেবু মুখে নিয়ে কিছুক্ষণ চুষে নিন। এ ছাড়া এক গ্লাস পানিতে এক টুকরো লেবুর রস, এক চিমটি নুন মিশিয়ে পান করুন। এটি দ্রুত বমি বমি ভাব দূর করে দিবে। এক টুকরো লেবু নাকের কাছে নিয়ে কিছুক্ষণ শুঁকে দেখতে পারেন, এটিও শারীরিক অস্বস্তি অনেকটাই কমিয়ে দেবে।

জিরা:

  • জিরা আরেকটি উপাদান যা আপনার বমি বমি ভাব নিমিষে দূর করে দিবে। কিছু পরিমাণ জিরা গুঁড়ো করে নিন, তারপর সেটি খেয়ে ফেলুন। মুহূর্তের মধ্যে বমি বমি ভাব দূর হয়ে যাবে।

আদা:

  • দ্রুত বমি বমি ভাব দূর করতে আদা খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। এক টুকরা আদা চায়ের সঙ্গে খান, এটি দ্রুত বমি বমি ভাব দূর করে দেবে। আদা হজমের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। ১ টেবিল চামচ আদার রস, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস এবং সামান্য বেকিং সোডা মিশিয়ে খেয়ে দেখুন। এটিও বমি বমি ভাব দূর করতে সাহায্য করবে।

Leave a Reply

নারীদের চেয়ে কম সময় বাঁচেন পুরুষরা, কেন?

শয়তানের প্রধান দশ কাজ