in ,

করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়া তরুণীর অভিজ্ঞতা! জানুন সেই ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা। নিজে সতর্ক থাকুন এবং অন্যদের সতর্ক থাকতে উদ্বুদ্ধ করুন।

করোনা আতঙ্কে নাকানিচুবানি খাচ্ছে গোটা বিশ্ব। প্রাণঘাতী ভাইরাসের কবল থেকে সুস্থ হয়ে মানুষ যেমনি বাসায় ফিরছে আবার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকায় বহু মানুষ প্রাণ হারাচ্ছেন। এবার আমরা শুনবো করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হ‌ওয়ার একটি অভিজ্ঞতার কথা।

বিজন্দা হালিতি নামে এক তরুণী তাঁর অভিজ্ঞতার কথা লিখেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তিনি সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে রক্ষা পেয়েছেন। সেই কথাই তিনি লিখেছেন সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটে।

২২ বছরের ওই তরুণী ইটালির বাসিন্দা। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, আর পাঁচজনের মতো তাঁর শরীরেও যে করোনা ভাইরাস বসা বেঁধেছে তা তিনি প্রথমে বুঝতে পারেননি। শুকনো কাশি হয়েছিল তাঁর। তারপর ক্রমশ করোনা তার খেল দেখাতে শুরু করে। দুর্বল হয়ে পড়েন তরুণী।

প্রথমদিন শুকনো কাশির পাশাপাশি হালকা কফ ও গলা ব্যথা হয় তাঁর।

দ্বিতীয় দিন থেকে শুরু হয় তীব্র মাথা ব্যথা। সঙ্গে দুই চোখে অসহ্য যন্ত্রণা শুরু হয়।

তৃতীয় দিন থেকে শুরু হয় জ্বর। বিছানা ছেড়ে উঠতেই পারতেন না তিনি। এই সময় তাঁর শুকনো কাশি, মাইগ্রেন, জ্বর এই সব উপসর্গই দেখা দিতে শুরু করে। এরপর তিনি চিকিৎসকের পরামর্শ নেন।

অদ্ভুতভাবে চতুর্থদিন জ্বর একেবারে উধাও। শুরু হয় তীব্র শ্বাসকষ্ট। মনে হত যেন বুকে উপর কেউ পাথর চাপিয়ে দিয়েছে। এরপরই তিনি করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন।

চিকিৎসকের পরামর্শে এরপর তিনি সেল্‌ফ কোয়ারেন্টাইনে চলে যান। এখন তিনি অনেকটাই সুস্থ। তাঁর আর কোনও সমস্যা নেই। আর তাই করোনা ভাইরাস নিয়ে কাউকে আতঙ্ক না ছড়িয়ে চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়ার আবেদন জানিয়য়েছেন তিনি।

Leave a Reply

আঁচিল কি? কেন হয়? ঘরোয়া উপায়ে আঁচিল দূর করার পদ্ধতি

হোম কোয়ারেন্টাইন, ভাইরাস ছাড়ানোর ইতিবৃত্ত!